,
Menu |||

টেরেসা-ট্রাম্প টুইট তরজা

শুক্রবার ১ ডিসেম্বর, ২০১৭ :

 শ্রাবণী বসু : অতি-দক্ষিণ মুসলিম বিরোধী ভিডিও রিটুইট করে নয়া বিপাকে মার্কিন প্রেসিডেন্ট। টুইটারে তাই নিয়েই ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী টেরেসা মে-র সঙ্গে বিবাদে জড়ালেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। ওই ভিডিও নিয়ে তীব্র আপত্তি উঠেছে। সমালোচনায় মুখর হন টেরেসাও।

তবে ট্রাম্প বেপরোয়া। স্বকীয়তা বজায় রেখে বুধবার টুইটে টেরেসাকে আক্রমণ করে তিনি লেখেন, ‘‘আমাকে নিয়ে ভাববেন না। ব্রিটেনের অন্দরে যে ধ্বংসাত্মক কট্টর ইসলামি সন্ত্রাস ছড়াচ্ছে, সে দিকে নজর দিন। আমরা এক্কেবারে ঠিক আছি।’’ রাগের জেরে টুইটটি প্রধানমন্ত্রী টেরেসা মে-র হ্যান্ডেলের বদলে পোস্ট করে দেন অন্য এক টেরেসার অ্যাকাউন্টে। টেরেসা স্ক্রিভেনার নামে সেই মহিলার মাত্র ছ’জন ফলোয়ার! ভুল শুধরে কয়েক মিনিটে ফের মার্কিন প্রেসিডেন্ট ক্ষোভ উগরে দেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর অ্যাকাউন্টে। পশ্চিম এশিয়া সফররত টেরেসা সাংবাদিকদের বলেন, ‘‘ওই ভিডিও রিটুইট করা একবারে উচিত কাজ হয়নি।’’ ট্রাম্পের ভুল টুইট ঝামেলা বাড়িয়েছে অন্য টেরেসার। সাসেক্সের বাসিন্দা ওই মহিলার দাবি, হোয়াইট হাউসকে তাঁর কাছে ক্ষমা চাইতে হবে। বাড়ি থেকে বেরোতে পারছেন না তিনি, বিশ্বের নানা প্রান্ত থেকে ফোন পাচ্ছেন।গন্ডগোলের সূত্রপাত গত কাল। জেডান ফ্র্যানসেন নামে ব্রিটেনের এক অতি-দক্ষিণ গোষ্ঠীর (যার নাম ‘ব্রিটেন ফার্স্ট’) নেত্রী তিনটি বিতর্কিত ভিডিও পোস্ট করেন। ভিডিওতে রয়েছে, কয়েক জন ‘মুসলিম’ মিলে ছেলেকে ছাদ থেকে ফেলে দিচ্ছেন। অন্যটিতে এক প্রতিবন্ধী ওলন্দাজ শিশুকে আঘাত করছেন ‘মুসলিম’ অভিবাসী। এতে আদৌ কোনও মুসলিমের হাত আছে কি না, তা প্রশ্নসাপেক্ষ। আমেরিকায় নেদারল্যান্ডসের দূতাবাস থেকে জানানো হয়, সংশ্লিষ্ট নির্যাতনকারী তাদের দেশেই জন্মেছে এবং বড় হয়েছে। অতীতে বক্তৃতায় আপত্তিকর শব্দ ব্যবহারের জন্য জেডানের বিরুদ্ধে অভিযোগও দায়ের হয়। এ হেন মহিলার পোস্ট করা ভিডিও ট্রাম্প রিটুইট করায় স্বভাবতই স্তম্ভিত ব্রিটিশ প্রশাসন। আমেরিকা-ব্রিটেন বরাবরই মিত্র দেশ। ট্রাম্প দায়িত্ব নেওয়ার পরে হোয়াইট হাউসে প্রথম সাক্ষাৎ হয় টেরেসার সঙ্গেই। তাঁর মুখপাত্র বলেন, ‘‘মার্কিন প্রেসিডেন্টের এমন করা ঠিক হয়নি।’’ আগামী বছরের গোড়ায় ব্রিটেন সফরের কথা ছিল ট্রাম্পের। এই জটিলতায় তা বাতিল হবে কি না, প্রশ্ন উঠেছে। ডাউনিং স্ট্রিট বলছে, বাতিল হবে না। কিন্তু লন্ডনের মেয়র সাদিক খান ট্রাম্পের সফর বাতিলের পক্ষে সওয়াল করে বলেন, ‘‘ট্রাম্প বুঝছেন না, তাঁর অতি দক্ষিণপন্থী মনোভাবে ব্রিটেনের বৈচিত্র্য এবং সহিষ্ণুতার ঐতিহ্য ক্ষুণ্ণ হচ্ছে।’’

Share
প্রধান সম্পাদক ও প্রতিষ্ঠাতা ॥ শাহাব উদ্দিন আহমেদ বেলাল
প্রধান সম্পাদক কর্তৃক লন্ডন থেকে প্রকাশিত।
ফোন ॥ (+৪৪)৭৯৪৪৩০৫৪৮৮
ই-মেইল ॥ probashebangladesh@hotmail.com
Copyright © BY Probashe Bangladesh
Design & Developed BY Popular-IT.Com